ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
আপডেট : ২৭ মে, ২০২৩ ১৭:০৩

সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসতে চান ইমরান খান

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক
সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসতে চান ইমরান খান

 

জরুরীভিত্তিতে পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসতে চান দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খান। শুক্রবার অনলাইনে জাতির উদ্দেশে দেয়া এক ভাষণে পিটিআই প্রধান বলেন, দেশকে বাঁচাতে যত দ্রুত সম্ভব সরকারি প্রতিনিধিদের সাথে আলোচনায় বসতে চান তিনি। পাকিস্তান নৈরাজ্যের দিকে যাচ্ছে এবং বর্তমানে দেশে যা চলছে, তা কোনো সমাধান তো নয়ই, উল্টো দেশকে আরও বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

ইমরান খান আরও বলেন, আমি সংবিধানের ওপর আস্থা রাখি। যদি সাংবিধানিক সময়সূচি অনুযায়ী নির্বাচন হয়, তাহলে নিঃসন্দেহে পিটিআই জিতবে। বর্তমানে পিটিআই নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তারে যে অভিযান চলছে, তা আমার দলের জনপ্রিয়তাকে আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে।

ক্রিকেট থেকে রাজনীতির মাঠে আসা ইমরান খান ২০১৮ সালের নির্বাচনে জয়ের পর সামরিক বাহিনীর আশীর্বাদপুষ্ট হয়েই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন কিন্তু ক্ষমতায় যাওয়ার পর সামরিক বাহিনীর সঙ্গে তার দূরত্ব সৃষ্টি হয় এবং তার মধ্যেই গতবছর পার্লামেন্টের বিরোধী সদস্যদের অনাস্থা ভোটে ক্ষমতাচ্যুত হন পিটিআই চেয়ারম্যান।

ক্ষমতা হারানোর জন্য ইমরান খান বরাবরই পাকিস্তান সেনাবাহিনীর কয়েকজন শীর্ষ জেনারেলকে দায়ী করেছেন। তবে দেশটির ক্ষমতা কাঠামোর শীর্ষে থাকা সামরিক বাহিনী বরাবরই তার অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

গত ৯ মে আলোচিত আল কাদির ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ইসলামাবাদ হাইকোর্ট থেকে ইমরান খানের গ্রেপ্তারের পর তার দল পিটিআইয়ের নেতা-কর্মীরা দেশজুড়ে বিক্ষোভ শুরু করেন এবং সেই বিক্ষোভে পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিভিন্ন সেনানিবাস ও সেনাদপ্তরে হামলা হয়। এ সংহিতায় অন্তত আটজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও কয়েক শ মানুষ।

উপরে