ঢাকা, রবিবার, ২০ জুন, ২০২১
আপডেট : ১৯ এপ্রিল, ২০২১ ১৫:২১

কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে ও মেদ কমায় ত্রিফলার পানি

অনলাইন ডেস্ক
কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে ও মেদ কমায় ত্রিফলার পানি

সুস্থ থাকতে আমরা অনেক কিছুই করে থাকি। শরীরচর্চার সঙ্গে খাবারেও ভালো উপাদানগুলি রাখলে তবেই শরীর ভালো থাকবে। তাই কেউ পান করেন লেবু পানি, কেউ পান করেন অ্যালোভেরা, আবার কেউ কেউ পান করেন ত্রিফলা ভেজানো পানি।

এই সবগুলিই এক ধরণের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে আমাদের শরীরে। তাই সকাল সকাল উঠেই অনেকে ত্রিফলার পানি পান করেন। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রেও এই পানির গুণ বর্ণনা করা আছে। তিনটি ফল মিলে রয়েছে এই ত্রিফলার মধ্যে। আমলকী, হরিতকি ও বিভিতকা রয়েছে। প্রতিটি ফল আলাদা আলাদা ভাবে আমাদের শরীরের জন্যে জরুরী। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো ছাড়াও রয়েছে এর নানা গুণ।

আমরা যারা অতিরিক্ত ওজনের সমস্যায় ভুগছি তারা ভালো ফল পাব এই পানি পান করলে। অতিরিক্ত মেদ ক্ষতি করে আমাদের শরীরে। তাই সেই অতিরিক্ত মেদ কমাতে ভালো ভূমিকা নেয় এই ত্রিফলার পানি। মেটাবোলিজম স্বাভাবিক রাখে। শরীর থেকে যাবতীয় দূষিত পদার্থ বের করে দেয় ত্রিফলার পানি।
রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ত্রিফলার পানি। বিভিন্ন ইনফেকশনের সঙ্গে লড়ার ক্ষমতা রয়েছে এই পানির মধ্যে। এছাড়াও এসিডিটির সঙ্গেও মোকাবিলা করতে পারে।

চোখের কোনো সমস্যা থাকলে সেটা দূর করে ত্রিফলার পানি। আবার দৃষ্টিশক্তি প্রখর করতেও ভালো ভূমিকা নেয়। এক গ্লাস গরম পানিতে ১-২ চামচ ত্রিফলা গুঁড়া মিশিয়ে সারা রাত রেখে দিন। পরদিন সকালে উঠে সেই পানিটা ছেঁকে নিয়ে ভালো করে চোখ পরিষ্কার করুন।

দাঁতের হলদে ছাপ, দাঁতের মাড়ি থেকে রক্ত পড়া, মুখের দুর্গন্ধ সব সমস্যার থেকে মুক্তি পাবেন এই পানি পান করলেই।

ত্রিফলায় থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট একদিকে যেমন খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে তেমন আবার হার্টে যাতে কোনওভাবেই প্রদাহ সৃষ্টি না হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই কোনও ধরনের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায়।

উপরে